আসাম সরকারের সিদ্ধান্তঃ বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে সোনা জয়ী স্প্রিন্টার হিমা দাসকে ডিএসপি পদে নিয়োগ

Main খেলা দেশ
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Published on: ফেব্রু ১১, ২০২১ @ ১৬:১৪

এসপিটি নিউজ ডেস্ক:  বুধবার রাতে আসাম সরকার এক অভূতপূর্ব সিদ্ধান্ত নিয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল তাঁর মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে সোনা জয়ী স্প্রিন্টার হিমা দাসকে রাজ্য পুলিশের ডেপুটি সুপারিন্টেন্ডেন্ট পদে নিয়োগ করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কিরেন রিজেজু এক ট্যুইটে লিখেছেন- “অনেকেই জিজ্ঞাসা করছেন, হিমার ক্রীড়া ক্যারিয়ার সম্পর্কে কী? তিনি এনআইএস পাতিয়ালায় অলিম্পিকের যোগ্যতার প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন এবং ভারতের হয়ে দৌড়াবেন। আমাদের অভিজাত অ্যাথলিটরা বিভিন্ন চাকরিতে নিযুক্ত এবং এখনও খেলা চালিয়ে যান। অবসর গ্রহণের পরেও তারা খেলাধুলার প্রচার চালিয়ে যাবেন।”

সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর, সরকারের মুখপাত্র ও শিল্পমন্ত্রী চন্দ্র মোহন পাটোওয়ারি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, মন্ত্রিপরিষদ পুলিশ, আবগারি, পরিবহন ইত্যাদি রাজ্যের বিভিন্ন বিভাগে ক্লাস -১ এবং ক্লাস -২ অফিসার নিয়োগ করে রাজ্যের সংহত ক্রীড়া নীতি সংশোধন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল যে হিমা দাসকে অসম পুলিশে ডিএসপি পদমর্যাদার কর্মকর্তা এবং অলিম্পিক, এশিয়ান গেমস এবং কমনওয়েলথ গেমসে পদক বিজয়ীদের প্রথম শ্রেণির কর্মকর্তা হিসাবে নিয়োগ করা হবে।

‘ধিং এক্সপ্রেস’ নামে পরিচিত, হিমা দাস আসামের একজন 20 বছর বয়সী ভারতীয় স্প্রিন্টার। তিনি 51.46 সেকেন্ড গতিতে আইএএএফ ওয়ার্ল্ড ইউ টুয়েন্টি চ্যাম্পিয়নশিপে গ্লোবাল ট্র্যাক ইভেন্টের যে কোনও বিন্যাসে প্রথম ভারতীয় মহিলা  হিসেবে স্বর্ণপদক হেতার কৃতিত্ব অর্জন করেছেন। মন্ত্রিপরিষদ রাজ্যটির জন্য সাইবার সুরক্ষা নীতিমালা খসড়া করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলেও জানান তিনি।

সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর, হিমা ২০১৯ সালে মোট পাঁচটি সোনার পদক জিতেছেন। যার মধ্যে তাঁর পঞ্চম সোনার পদকটি এসেছে নোভ মেষ্টো অ্যাথলেটিক মিট থেকে। ২০১৯ সালের ২০ জুলাই এই মিট অনুষ্ঠিত হয়েছিল। সেখানে হিমা 400 মিটার দৌড়ে 52.09 সেকেন্ড সময় করে তাঁর পঞ্চম সোনার পদকটি জিতে নেন। এটা তাঁর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সময়।

এছাড়াও হিমা তাবোর অ্যাথলেটিক মিটে 200 মিটার দৌড়ে সোনার পদক জেতেন।এছাড়াও তিনি ওই বছরে যে বাকি তিনটি প্রতিযোগিতা থেকে সোনার পদক জেতেন সেগুলি হল- ক্ল্যাডো অ্যাথলেটিক মিট, কুন্তো অ্যাথলেটিক্স মিট এবং পোজনাম অ্যাথলেটিক্স গ্র্যান্ড প্রিক্স।

Published on: ফেব্রু ১১, ২০২১ @ ১৬:১৪


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *