নেতাজির চিন্তাভাবনা ও আদর্শেই গড়ে উঠবে আত্মনির্ভর ভারত -বললেন প্রধানমন্ত্রী মোদি

Main দেশ রাজ্য
শেয়ার করুন

Published on: জানু ২২, ২০২১ @ ১৮:৪৮

এসপিটি নিউজ:  এ বছর নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর ১২৫ তম জন্মদিবসকে পরাক্রম দিবস হিসেবে পালন করার কথা ঘোষণা করেছে ভারত সরকার। সেই কথা মাথায় রেখে আগামিকাল গুজরাটের ঐতিহাসিক হরিপুরায় নেতাজির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এক বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। য়াজ ট্যুইট বার্তায় প্রধানমন্ত্রী মোদি স্মরণ করলেন নেতাজিকে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ট্যুইট বার্তায় লিখেছেন- আগামীকাল, ভারত নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বোসের জন্মদিনকে  পরাক্রমদিবস রূপে পালন করবে। দেশজুড়ে যে বিভিন্ন কর্মসূচির আয়োজন করা হচ্ছে তার মধ্যে একটি বিশেষ অনুষ্ঠান গুজরাটের হরিপুরায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

তিনি আরও লেখেন যে “প্রধানমন্ত্রী মোদী তার টুইটে লিখেছেন, ‘নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর ধারণাগুলি ও আদর্শ আমাদের অনুপ্রেরণা জাগ্রত করবেন এমন একটি ভারত গড়ার পথে কাজ করার জন্য। একটি শক্তিশালী, আত্মবিশ্বাসী এবং স্বনির্ভর ভারত, যার মানবকেন্দ্রিক দৃষ্টিভঙ্গি আগামী বছরগুলিতে আরও ভাল গ্রহ তৈরিতে অবদান রাখবে।”

“নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বোসের সাথে হরিপুরার বিশেষ সম্পর্ক রয়েছে। ১৯৩৮ সালের ঐতিহাসিক হরিপুরা অধিবেশনেই নেতাজি বোস কংগ্রেস দলের সভাপতির পদ গ্রহণ করেছিলেন। আগামীকাল হরিপুরায় অনুষ্ঠানটি আমাদের জাতির জন্য নেতাজি বোসের অবদানের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি হবে।” লেখেন মোদি।

মোদি আরও লিখেছেন- “নেতাজী বোসের জয়ন্তীর প্রাক্কালে আমার মন ফিরে আসে ২৩ শে জানুয়ারি ২০০৯ – যেদিন আমরা হরিপুরা থেকে ই-গ্রাম বিশ্বগ্রাম প্রকল্প চালু করেছিলাম। এই উদ্যোগটি গুজরাটের আইটি অবকাঠামোতে বৈপ্লবিক পরিবর্তন ঘটায় এবং প্রযুক্তির ফলগুলি রাজ্যের প্রত্যন্ত অঞ্চলে দরিদ্রদের কাছে নিয়ে যায়।”

হরিপুরার মানুষের স্নেহ আমি কখনই ভুলতে পারি না, নেতাজি বোসকে সেদিন যেমনভাবে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল সেই একই রাস্তায় ১৯৩৮ সালে বিস্তৃত শোভাযাত্রার মধ্য দিয়ে আমাকেও তারা নিয়ে গিয়েছিলেন। তাঁর মিছিলে ৫১ টি ষাঁড়ের টানা একটি সজ্জিত রথ ছিল। হরিপুরায় নেতাজী যে স্থানে অবস্থান করেছিলেন আমিও সেখানে গিয়েছিলাম।বলেন প্রধানমন্ত্রী মোদি।

Published on: জানু ২২, ২০২১ @ ১৮:৪৮


শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

− 1 = 6