করোনাভাইরাস: দেখুন চিনে কুকুর মুখে মাস্ক লাগিয়ে গাড়ি চালিয়ে কেমনভাবে সাহায্য করছে

Main বিদেশ ভ্রমণ স্বাস্থ্য ও বিজ্ঞান
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

  • (টাফি)-র চেয়ারম্যান অনিল পাঞ্জাবি শেয়ার করেছেন এই ভিডিওটি।
  • যেখানে দেখা গেছে একটি কুকুর মুখে মাস্ক লাগিয়ে গাড়ি চালিয়ে তার প্রভুকে শপিং মল থেকে জিনিস কিনে পৌঁছে দিচ্ছে।

Published on: ফেব্রু ২৫, ২০২০ @ ২১:১২

এসপিটি নিউজ ডেস্ক: আজ সন্ধ্যায় সংবাদ প্রভাকর টাইমস-এর কাছে একটি ছোট্ট ভিডিও এসে পৌঁছেছে। ভিডিওটি শেয়ার করেছে আমাদের ট্রাভেল এজেন্টস ফেডারেশন অব ইন্ডিয়ার চেয়ারম্যান (টাফি)-র চেয়ারম্যান অনিল পাঞ্জাবি। যেখানে দেখা গেছে একটি কুকুর মুখে মাস্ক লাগিয়ে কত সুন্দরভাবে ছোট্ট একটি গাড়ি চালিয়ে তার প্রভুকে শপিং মল থেকে জিনিস কিনে পৌঁছে দিচ্ছে।যা খুবই লক্ষনীয় বিষয় বলে মনে করেন টাফি-র চেয়ারম্যান অনিল পাঞ্জাবি।

ভিডিওটিতে যা দেখা গেছে

এক মিনিট দুই সেকেন্ডের ভিডিওটিতে দেখা গেছে এক ব্যক্তি ফ্রিজ খুলে দেখেন তার রান্নার প্রয়োজনীয় জিনিসটি নেই। তখন সে তার পোষ্য কুকুরকে নাম ধরে ডাকেন। কুকুরটি সিঁড়ি দিয়ে তার কাছে ছুটে আসে। সেই ব্যক্ত একটি কাগজে প্রয়োজনীয় জিনিসের নাম লিখে সঙ্গে জিনিসটির প্রয়োজনীয় দাম সমেত চিরকুটটি কুকুরটির পিঠে বাধা একটি ব্যাগের মধ্যে ঢুকিয়ে দেন। কুকুরটি এরপর তার ছোট্ট গাড়িতে চেপে তা চালিয়ে সোজা পৌঁছে যায় শপিং মলে। সেখানে দোকানদার কুকুরটির পিঠ থেকে টাকা সমেত চিরকুটটি নিয়ে সেই জিনিসটি কুকুরটির পিঠে বাধা ব্যাগের মধ্যে ঢুকিয়ে দেন। কুকুরটির সেটি নিয়ে ফের তার প্রভুর কাছে তা পৌঁছে দেন। কুকুরটর মুখে পরা থাকে মাস্ক।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা কি বলছে

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা সম্প্রতি ঘোষণা করেছে যে 2019 সালের নভেল করোনাভাইরাস (ওরফে, 2019-এনসিওভি) এখন একটি বিশ্ব স্বাস্থ্য জরুরী, ইতিমধ্যে চিন্তিত জনগোষ্ঠীর মধ্যে আরও আতঙ্ককে প্রভাবিত করছে। তবে এখন দেখা যাচ্ছে যে উদ্বেগটি কেবল মানব স্বাস্থ্যের জন্য নয় — পোষ্য প্রাণীর মালিকরাও এখন তাদের কুকুরের জন্য স্পষ্টতই উদ্বিগ্ন।

মাস্ক কিনতে হুড়োহুড়ি চিনে কুকুরের মালিকদের

ডেইলি মেইল ​​অনুসারে, চিনে কুকুরের মালিকরা তাদের পোষা প্রাণীর জন্য করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধ করার জন্য মাস্ক কিনতে ছোটাছুটি করছেন। ডেইলি মেইলকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে বেইজিং-ভিত্তিক কুকুরের মুখোশ বিক্রেতা ঝো তিয়ানসিয়ো প্রকাশনাটিকে জানিয়েছিলেন যে, মহামারীটি শুরু হওয়ার কারণে তিনি প্রতি মাসে প্রায় ১৫০ টি মাস্ক বিক্রি করছেন। এর মধ্যে এখন তিনি দিনে ৫০ টি মুখোশ বিক্রি করেছেন। “বেশিরভাগ কুকুর মুখোশ পরতে শুরু করেছে। যেহেতু এই ভাইরাস রয়েছে তাই লোকেরা তাদের স্বাস্থ্য এবং পোষা প্রাণীর স্বাস্থ্যের দিকে বেশি মনোযোগ দিয়েছে, “তিয়ানসিয়াও বলেছেন। “কুকুরের মুখোশ মানুষের জন্য তৈরি মেডিকেল মাস্কগুলির মতো পেশাদার নাও হতে পারে, তবে তা কার্যকর রয়েছে।”

বেড়েছে বিক্রি

তবে এটি কেবল চিনেই নয়: গুড এয়ার টিম, টেক্সাস-ভিত্তিক একটি সংস্থা, যা কে 9 মাস্ক উৎপাদন করে, ইতিমধ্যে বিক্রি বেড়েও গেছে। মালিক কির্বি হোমস ইউএসএ টুডে-কে বলেছেন, “আমাদের অ্যামাজনে বিক্রি বেড়েছে 300%, যা আমাদের অনুসন্ধানের বাইরে চলে গেছে।

Published on: ফেব্রু ২৫, ২০২০ @ ২১:১২

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *