অধীর রঞ্জন চৌধুরীকে কংগ্রেস লোকসভায় তাদের নেতা করল

দেশ রাজ্য লোকসভা ভোট 2019
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Published on: জুন ১৮, ২০১৯ @ ২১:২৪

এসপিটি নিউজ, নয়া দিল্লি, ১৮জুন: কংগ্রেস মঙ্গলবার পশ্চিমবঙ্গের বহরমপুরের সাংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরীকে লোকসভায় তাদের নেতা হিসেবে তুলে ধরেছে। এক দিন আগেই হয়ে যাওয়া পার্টির মিটিং-এ রাহুল গান্ধী এই পদ নিতে অস্বীকার করে এই পদের জন্য অধীর চৌধুরীর নাম প্রস্তাব করেন। অধীরবাবুর নাম বাংলার কংগ্রেসে রীতিমতো শক্তিশালী নাম।

অধীরবাবু বলেন- ” আমার উপর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। আমাকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।আমি রাজী হয়েছি। আমি পায়ের উপর দাঁড়ানো একজন সৈনিক। যে সবসময় সামনে দাঁড়িয়ে থেকে লড়াই করে। আমি সেরকমই একজন সৈনিকের মতো লড়ে যাব।

অধীর চৌধুরী ২০১৪ সালে লোকসভা ভোতে ৩ লাখ ৫৬ হাজার ভোটে জয়ী হন। এবার সারা দেশে কংগ্রেস মাত্র ৪৪টি আসনে জিতেছে। লোকসভার নেতা পদের জন্য এর অধীর চৌধুরী ছাড়াও প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মনীষ তেওয়ারি, সাংসদ শশী থারুর, কেরল প্রদেশ কংগ্রেসের কার্যকরী সভাপতি কে সুরেশের নাম প্রস্তাব করা হয়েছিল। গত লোকসভায় মল্লিকার্জ্জুন খাড়গে কংগ্রেসকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। কিন্তু এবার তিনি ভোটে পরাজিত হয়েছেন।

লোকসভা ভোটে মাত্র ৫২টি আসন জেতা কংগ্রেস কোরাম পূর্ণ করতে না পারার কারণে লোকসভার নেতা বিরোধী পদ পাবে না। প্রথমে ঠিক ছিল যে রাহুল গান্ধী লোকসভায় কংগ্রেস দলের নেতার দায়িত্ব সামলাবেন কিন্তু দলের সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়ার পর এ বিষয়ে পরিস্থিতি জটিল হয়ে যায়।

রাজনৈতিক মহল মনে করছে, অধীর চৌধুরীকে কংগ্রেস লোকসভায় তাদের নেতা করে মূলতঃ পশ্চিমবঙ্গে দলকে মজবুত করার প্রচেষ্টা শুরু করল। সামনে কলকাতা কর্পোরেশনের ভোট ছাড়াও সামনে বিধানসভা ভোটের কথা মাথায় রেখে দলকে সাজানোর আরও সুযোগ করে দেওয়া হল। বিশেষ করে শূন্য অবস্থায় দাঁড়িয়ে একদিকে কেন্দ্রের শক্তিশালী বিজেপি ও রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে লরাই করে নিজের আসন ছিনিয়ে আনতে পেরেছেন অধীর চৌধুরী তার জন্য লোকসভায় তাঁর প্রশংসা করছেন বহু নেতা। যার মধ্যে রয়েছেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি অধীরদা খুব বড় মাপের নেতা। আর তাঁকে নেতা করে বাংলায় তৃণমূলের সঙ্গে লড়াইটা আরও জোরদার করতে চাইছে কংগ্রেস। এটা তারই একটা প্রক্রিয়া মাত্র।

Published on: জুন ১৮, ২০১৯ @ ২১:২৪


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *