৮১ বছরেও শিক্ষা দানে অবিচল শিক্ষক প্রভারঞ্জন জানাকে সম্মানিত করলেন ওরা

রাজ্য
শেয়ার করুন

সংবাদদাতা– বাপ্পা মণ্ডল                                         ছবি-বাপন ঘোষ

Published on: সেপ্টে ৫, ২০১৮ @ ২৩:৪৩

এসপিটি নিউজ, মেদিনীপুর, ৫ সেপ্টেম্বরঃ স্কুলের শিক্ষকতার পাঠ চুকিয়েছেন ১৯ বছর আগে। কিন্তু ছোট্ট ছেলে-মেয়েদের দেখলে আজও তাঁর মন কেঁদে ওঠে শিক্ষাদানের জন্য। তাঁর এই দানে পাওয়ার আকাঙ্খা নেই আছে শুধু সেবার মনোভাব। বয়স তাঁর ৮১ হলেও তিনি আজও তাই একজন তরতাজা যুবকের ন্যায় সদাসচল কর্মঠ আর শিক্ষাদানে বলপ্রদত্ত। তিনি হলেন ঘাটালের ঘোলসাই প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক প্রভারঞ্জন জানা। আজ এই শিক্ষককে সম্মান জানালেন মেদিনীপুরের এলআইসি চকের আমরা কজন-এর ছেলেরা।

১৯৯ সালে প্রভারঞ্জনবাবু স্কুলের শিক্ষকতার জীবন থেকে অবসর নেন। দু’বছর আগে তাঁর স্ত্রী গত হয়েছেন। এখন তাঁর এক ছেলে ও এক মেয়ে নিয়ে সংসার। ছেলে মলয় জানা খড়্গপুর পলিটেকনিক স্কুলের শিক্ষক। একস্ময় ঘাটালে থাকলেও আজ তাঁর ঠিকানা মেদিনীপুর শহরের এলআইসি চক। এখানে তিনি ছেলের কাছেই থাকেন।

সকাল-সন্ধ্যায় প্রভারঞ্জনবাবু এলাইসি চক এলাকায় চলে আসেন। সকলের সঙ্গে বসে গল্পগুজব আর এলাকার গরিব ছেলে-মেয়েদের বই-খতা কিনে দ্দেওয়া থেকে তাদের পড়াশুনোয় সাধ্যমতো সাহায্য করে থাকেন। এমনকি বড়দের চা-বিস্কুট খাওয়াতে একদিন ও ভোলেন না। শিক্ষকতার চাকরি তাঁকে অবসর নিতে বাধ্য করলেও শিক্ষকতা কিন্তু তিনি আজও ছাড়তে পারেননি। আজও তিনি সমানভাবে শিক্ষাদানে বলিপ্রদত্ত। এলাকার মানুষের কাছে তিনি সত্যিই সম্মানীয়।

তাই এই মানুষটিকে এমন সম্মানীয় শিক্ষককে শিক্ষক দিবসে সম্মান জানানোর সুযোগ হাতছাড়া করতে চাননি ওরা কেউ।এলআইসি চকে স্বপন বিষয়, পার্থ বেজ, অশোক কুমার মণ্ডল, কার্তিক বেজ, গোপাল বেজ, বাপ্পা মণ্ডল আমরা কজনের সদস্যরা। তাঁরা এই শিক্ষকের হাতে ফুল, মিস্টি পেন দিয়ে সম্বর্ধিত করেন।

Published on: সেপ্টে ৫, ২০১৮ @ ২৩:৪৩


শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

50 + = 55