শেখ হাসিনার হাতে মোদি তুলে দিলেন ১২ লক্ষ করোনা ভ্যাকসিনের ডোজ, হল দুই দেশের সমঝোতাও

Main দেশ বাংলাদেশ ভ্রমণ
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Published on: মার্চ ২৭, ২০২১ @ ২০:৪৮
Reporter: Ibtasum Rahman

এসপিটি নিউজ, ঢাকা, ২৭ মার্চ:  আজ শনিবার বাংলাদেশে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও বাংলাদেশের প্রধগানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মধ্যে একাধিক সমঝোতা সাক্ষরিত হয়েছে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে ভারতের তৈরি কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের ১২ লক্ষ ডোজ উপহার হিসেবে তুলে দেন। একই সঙ্গে ১০৯টি অ্যাম্বুলেন্সও দোয়া হয় ভারতের পক্ষ থেকে। এর আগে প্রধানমন্ত্রী মোদি ওড়াকান্দিতে মতুয়া সমাজের মেয়েদের জন্য প্রাথমিক বিদ্যালয় চালু করবে বলে জানিয়েছেন। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী মোদিকে উপহার হিসাবে স্বর্ণ ও রৌপ্যের কয়েন উপহার দিয়েছিলেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠার পঞ্চাশ বছর পূর্তি উপলক্ষে এই উপহার দিয়েছেন।

https://twitter.com/ANI/status/1375791366437957638
যশোরেশ্বরী কালী মন্দিরে পুজোও দেন মোদি

এর আগে প্রধানমন্ত্রী মোদি দক্ষিণ-পূর্ব সাতক্ষীরার যশোরেশ্বরী কালী মন্দিরে পৌঁছেছিলেন, সেখানে তিনি প্রার্থনা করেছিলেন। এটি ৫১ শক্তিপীঠগুলির মধ্যে একটি বলে বিবেচিত হয়। তিনি বলেছিলেন, ‘আমি প্রার্থণা করি, মা কালী করোনার সংকট থেকে বিশ্বকে মুক্তি দেবেন।’ মোদি কালী মায়ের মূর্তির মাথায় মুকুট পরিয়ে দেন। মুকুটটি রূপা দিয়ে তৈরি, যার উপরে সোনার প্লেটিং রয়েছে। এটি প্রায় তিন সপ্তাহের মধ্যে প্রথাগত শিল্পীরা প্রস্তুত করেছেন।

করোনার সঙ্কট থেকে মুক্তি চেয়েছেন

প্রধানমন্ত্রী মোদি বলেন যে আমি ৫১ টি শক্তিপীঠের এক মা কালীর পদপ্রান্তে আসার সৌভাগ্য পেয়েছি। আজ পুরো মানব জাতি করোনার কারণে অনেক সংকট নিয়ে চলছে। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব করোনার এই সংকট থেকে পুরো মানব জাতিকে মুক্ত করার জন্য মা কালীর কাছে প্রার্থণা করেছি। প্রধানমন্ত্রী ‘সর্বে ভবন্তু সুখিনা’ ও ‘বসুদেবা কুটুম্বকম’ এই উক্তি ভারতীয় সংস্কৃতির ঐতিহ্য বলেছেন। প্রধানমন্ত্রী মো্দি এখানে একটি কমিউনিটি সেন্টার গঠনের আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেছিলেন যে ভারত সরকার এখানে এটির নির্মাণের জন্য কাজ করবে যাতে এটি ভক্তগণ ব্যবহার করতে পারেন।

মোদির সফরের আগেই মন্দিরটি পুনর্নিমাণ করা হয়েছিল

প্রধানমন্ত্রী মোদির সফরের আগে বাংলাদেশ সরকার ইতোমধ্যে যশোরেশ্বরী মন্দির সংস্কার করেছে। বাংলাদেশ রওনা হওয়ার আগে প্রধানমন্ত্রী মোদি ট্যুইট করেছিলেন যে তিনি প্রাচীন যশোরেশ্বরী কালী মন্দিরে দেবী কালীকে উপাসনা করতে খুব উদগ্রীব।

শেখ হাসিনা ‘নেবারহুড ফার্স্ট পলিসি’র প্রশংসা করেছেন

প্রধানমন্ত্রী মো্দি ও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মধ্যে প্রতিনিধি পর্যায়ের আলোচনার বিষয়ে তথ্য প্রদান করে ভারতের পররাষ্ট্র সচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা বলেছেন যে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ভারতের ‘নেবারহুড ফার্স্ট পলিসি’র প্রশংসা করেছেন। প্রধানমন্ত্রী মোদি ও শেখ হাসিনা শনিবার বঙ্গবন্ধু-বাপু ডিজিটাল প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেছেন। আমরা এই প্রদর্শনীটি অনেক দেশে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করছি। দুই প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকে এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়েছিল।

৬  ডিসেম্বরকে ‘মৈত্রী দিবস’ হিসাবে পালনের সিদ্ধান্ত

ভারতের পররাষ্ট্রসচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা বলেছেন যে প্রধানমন্ত্রী মোদি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৬ডিসেম্বরকে ‘মৈত্রী দিবস’ হিসাবে পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এ দিন ভারত আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশকে একটি দেশ হিসাবে স্বীকৃতি দেয়। প্রধানমন্ত্রী মোদি এবং শেখ হাসিনার মধ্যে ডেলিগেশন-পর্যায়ের আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৈঠকে আলোচনা হয়েছিল যে কীভাবে দুই দেশ একাত্তরের উত্তরাধিকার রক্ষা করতে পারে।

Published on: মার্চ ২৭, ২০২১ @ ২০:৪৮


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *