পানিঘাটায় জনসভায় হৈ-হট্টগোল, অব্যবস্থায় ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী মেজাজ হারিয়ে বসে পড়লেন

রাজ্য লোকসভা ভোট 2019
শেয়ার করুন

Published on: এপ্রি ২০, ২০১৯ @ ১৬:৩০

এসপিটি নিউজ, কৃষ্ণনগর, ২০ এপ্রিল: নদিয়ার কৃষ্ণনগর লোকসভা কেন্দ্রের পানিঘাটার জনসভায় তৃণমূল প্রার্থী মহুয়া মৈত্রর সমর্থনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে চূড়ান্ত অব্যস্থা দেখে ক্ষোভে ফেটে পড়েন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তুমুল হৈ-হট্টগোলে একটা সময় মুখ্যমন্ত্রীকে বক্তব্য থামিয়ে সোজা গিয়ে বসে পড়তে দেখা যায়।

ঠিক কি হয়েছিল

সবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পানিঘাটার জনসভায় বক্তব্য রাখতে ওঠেন। আর সেইসময় ভিড়ের মধ্যে থেকেই তুমুল হৈ-হট্টগোলের আওয়াজ আসতে থাকে। ক্রমেই সেই আওয়াজ জোরালো হয়ে অঠে। আওয়াজের তীব্রতা এত বেশি ছিল যে মুখ্যমন্ত্রীর বক্তৃতা শোনাই যাচ্ছিল না।

ঠিক সেসময় মুখ্যমন্ত্রী তাঁর বক্তব্য কিছুটা টেনে নিয়ে যাচ্ছিলেন। কিন্তু অল্প কিছু সময়ের মধ্যে হট্টগোল এত বেশি পরিমাণে হতে শুরু করে যে মুখ্যমন্ত্রীকে মাঝপথেই বক্তৃতা থামিয়ে দিতে হয়। সেইসময় মাইক হাতে নিয়ে তিনি মঞ্চের এক পাশে হেঁটে যান।

তিনি বলেন-“লক্ষ্যাধিক মানুষ এই মিটিং-এ এসছে। তাদের কথাগুলো সকলকে শোনাবার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য আমি আপনাদের অনুরোধ করবো। যদি কেউ চলে যেতে চায় ছেড়ে দিন না। তাহলে তো চিৎকার চেঁচামেচি বন্ধ হবে।”

এরপর মুখ্যমন্ত্রী মেজাজ হারিয়ে ক্ষোভে ফেটে পড়েন। এমন অব্যবস্থা দেখে তাঁকে বলতে শোনা যায়-” এটা কি আমায় করতে হবে। শুধু এই রুটটা। এখান থেকেই আসছে আওয়াজ। বসার জন্য জায়গা করে দিন। এই জায়গার মেয়েদের জায়গা করে দাও। এগুলো তো নিজেরা করে দেবে। না কি আমি আসার পর মাইক নিয়ে দাঁড়াবো।”

এরপর ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গিয়ে বসে পড়েন। পরে অবশ্য তিনি বক্তব্য শুরু করেন। তখন অবশ্য পরিস্থিতি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে।এরপর তিনি নির্বিঘ্নেই শেষ করেন বক্তৃতার বাকি অংশ।

Published on: এপ্রি ২০, ২০১৯ @ ১৬:৩০


শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

65 − = 59