পাকিস্তানকে স্পষ্ট বার্তা-পাইলটের কিছু হলে ভারত তার কাজ শুরু করবে

Main দেশ
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Published on: ফেব্রু ২৮, ২০১৯ @ ১৬:৩৩

এসপিটি নিউজ ডেস্কঃ আমাদের পাইলট উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্ধমান এখন পাকিস্তানের হেফাজতে।আর তাঁকে এখন পাকিস্তান তুরুপের তাস বানাতে চাইছে। তাঁকে সামনে রেখে ভারতের উপর সেই পুরনো ছকবাজি করতে চাইছে যেভাবে কান্দহার বিমান অপহরণ মামলায় মাসুদ আজহারকে ছাড়িয়ে নিয়ে গেছিল তারা। সেই একই পদ্ধতইকে সামনে এনে এবার ভারতের উপর চাপ বাড়াতে চাইছে পাকিস্তান। তবে এবার ভারত অনেক শক্তিশালী। এসব চাপ দিয়ে যে ভারতকে যে কাবু করা সম্ভব হবে না সেটা সাফ জানিয়ে দিয়েছে ভারত। একই সঙ্গে পাকিস্তানকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছে- ভালোয় ভালোয় তোমরা আমাদের পাইলটকে ফিরিয়ে দাও। না হলে তাঁর যদি কোনও ক্ষতি হয় তাহলে কিন্তু আমরা চুপ করে বসে থাকব না তখন দেখবে আমাদের অন্য চেহারা। আমরা নেব তোমাদের বিরুদ্ধে চরম ব্যবস্থা।

ভা্রত জানিয়েছে, ইতিমধ্যে আমেরিকা সহ বিশ্বের একাধিক দেশ ভারতের পাশে আছে। ইতিমধ্যে জার্মানি, গ্রেট ব্রিটেন, ফ্রান্স মাসুদ আজহার ও তার জঙ্গি সংগঠন জৈশকে ব্যান করতে রাষ্ট্রসংঘের কাছে প্রস্তাব পেশ করেছে। ইতিমধ্যে ভারত পাকিস্তানের উপর কূটনৈতিক চাপ দেওয়া শুরু করেছে। পাকিস্তানের এখন শিরে সংক্রান্তি অবস্থা। ঘর রাখবে না কূল রাখবে তা নিয়েই তারা এখন দিশেহারা। একদিকে জঙ্গিদের চাপ আর দিকে আন্তর্জাতিক দেশগুলির কাছে নিজেদের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করার কঠিন পরীক্ষা। তাদের এখন দুটোই দরকার। জঙ্গিদের তারা কোনওভাবেই খেপাতে পারবে না। আবার ঠিক তেমনই আন্তর্জাতিক দুনিয়ায় নিজেদের ভাবমূর্তি কিভাবে তুলে ধরবে সেটাও এক কঠিন চ্যালেঞ্জ। তাই বাধ্য হয়ে তারা এখন শান্তির কথা আওড়াতে শুরু করেছে। কিন্তু তাদের বিশ্বাস করা হাতে বিষাক্ত সাপ তুলে ধরা একই রকম ভয়ঙ্কর। বলছেন আমাদের দেশের প্রাক্তন সেনা কর্তারা। তাই আলোচনা যে এই মুহূর্তে দূর অস্ত সেটা একপ্রকার পরিষ্কার।

এরই মধ্যে নিউ দিল্লিতে ফের বৈঠকে বসেছে সরকারের মাথারা। একই সঙ্গে বেলজিয়াম, কানাডা, দক্ষিণ আফ্রিকা, নাইজেরিয়া সহ ১০টি দেশের কূটনীতিকদের সঙ্গেও শুরু হয়েছে বৈঠক। কি হবে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে স্ট্যাটেজি তা নিয়ে চলছে রুদ্ধদ্বার বৈঠক। ভারত যে এইমধ্যে গুটি সাজাতে শুরু করেছে সেটা পরিষ্কার হয়ে গেছে। এই ভারত যে পাকিস্তানকে বড় রকমের শিক্ষা দেওয়ার জন্য তৈরি হচ্ছে সেটা পাকিস্তান ভালোমতোই বুঝতে পারছে। জঙ্গিদের শেষ করতে ভারত যে পরিকল্পিতভাবেই এগোচ্ছে তাও পরিষ্কার হয়ে গেছে।

ভারত সমানে বলে চলেছে পাকিস্তাঙ্কে- ভালো চো তো তোমরা আমাদের পাইওলটকে ফিরিয়ে দাও। তোমরা যুদ্ধবন্দি আইন জেনিভে চুক্তি লঙ্ঘন করে মহাভুল করেছো। এর জবাব তোমাদের দিতেই হবে। তোমরা জানো -একজন সৈন্যের সঙ্গে কিরকম আচরণ করা উচিত , তবু তোমরা তাঁর সঙ্গে অভব্য আচরণ করেছো। তাঁর উপর অত্যাচার চালিয়েছো। তাঁকে টিভি ক্যামেরার সামনে নিয়ে এসে তাঁকে দিয়ে তাঁর নাম বলিয়েছো। তাঁর ক্ষতবিক্ষত চেহারা দেখিয়ে নিজের স্বরূপ প্রকাশ করেছো।েই পাইওলটের কিছু হলে ভারত কিন্তু ছেড়ে কথা বলবে না। মনে রেখো।

Published on: ফেব্রু ২৮, ২০১৯ @ ১৬:৩৩


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *