নৈহাটিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা কমছে, চলছে টিকা প্রদান- জানালেন পুরপ্রশাসক অশোক চট্টোপাধ্যায়

Main কোভিড-১৯ রাজ্য
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

“যে ভ্যাকসিন রাজ্য সরকার নিজেরা কিনে দিচ্ছে মানুষের স্বার্থে বাংলার স্বার্থে সেখানে মোদির কেন ছবি থাকবে? এটা নিয়ে আমাদের আপত্তি ছিল সেই কারণে আমরা সার্টিফিকেট প্রদান বাতিল করে দিয়েছি।” বলেন নৈহাটির প্রশাসক অশোক চট্টোপাধ্যায়।

 Published on: মে ৩১, ২০২১ @ ২৩:০৫

Reporter: Aniruddha Pal

এসপিটি নিউজ, নৈহাটি, ৩১ মে:  করোনার দ্বিতীয় ঢেউ-এর বিরুদ্ধে লড়ছে সারা দেশ। পশ্চিমবঙ্গে বর্তমান রাজ্য সরকার এর বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নিয়েছে। এরফলও হাতেনাতে মিলছে। উত্তর ২৪ পরগনা জেলার নৈহাটিতে পুরপ্রশাসনের উদ্যোগে কোভিড বিধি মেনে চলা হচ্ছে। আর তার ফলে গত বেশ কয়েক দিনে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা অনেকতাই কমেছে বলে জানালেন পুরপ্রশাসক অশোক চট্টোপাধ্যায়। একই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, রাজ্যের পাঠানো ভ্যাকসিন তারা পর্যাপ্ত পরিমানেই পাচ্ছেন।সেই মতো চলছে টিকা প্রদানের কাজ।

উত্তর ২৪ পরগনা জেলার নৈহাটি পুরসভা এলাকায় গত এক বছর ধরে কোভিড বিধি মেনে চলতে পুরপ্রশাসন যথাযথ ব্যবস্থা নিয়েছে। পুরসভার স্বাস্থ্যবিভাগের ভারপ্রাপ্ত প্রশাসক সনৎ দে’র তত্বাবধানে সুষ্ঠুভাবেই চলছে কোভিড আক্রান্ত রোগীদের পরিচর্যা থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষদের টিকা দেওয়ার কাজ।

কোভিড টিকা প্রদান নিয়ে নৈহাটি পুরসভার পুরপ্রশাসক অশোক চট্টোপাধ্যায় যা বললেন

নৈহাটি পুরসভার পুরপ্রশাসক অশোক চট্টোপাধ্যায় সংবাদ প্রভাকর টাইমস’কে জানালেন- “রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগে আমাদের বিধায়ক পার্থ ভৌমিকের তৎপরতায়, আমাদের পুরসভার স্বাস্থ্য দফতরের তৎপরতায় আমরা এখন কোভিডের টিকা দেওয়ার কাজ প্রতিদিন চালিয়ে যাচ্ছি। আমাদের নৈহাটির জনসংখ্যা   ২,১৮,৫৬২জন। আমরা সময় অনুযায়ী সবটাই কভার করে ফেলতে পারব।”

নৈহাটি পুরসভা এলাকায় রাজ্যের অন্যান্য জায়গার মতোই কোভিডের বিধিনিষেধ পালন করা হচ্ছে। দোকান-পাট নির্দিষ্ট কিছু সময়ের জন্য খুলছে। বাস-ট্রেন সম্পূর্ণভাবেই বন্ধ। এসবের ফল আমরা হাতে নাতে পাচ্ছি। এটা ঠিক যে, এর ফলে রুটি-রোজগারে টান পড়েছে কিন্তু মানুষ করোনার হাত থেকে রেহাই পাচ্ছে। গত কয়েক দিনে নৈহাটি পুরসভা এলাকায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা অনেকটাই কমেছে। এটা একটা ভালো দিক। তবে, পাশাপাশি পুর এলাকায় মৃত্যুর সংখ্যাও বেড়েছে। বার্নিং ঘাটগুলিতে মৃতদেহ বেড়েছে। তবে সঠিক সংখ্যাটা আমরা কয়েক দিনের মধ্যেই জেনে যাব। বলেন অশোকবাবু।পাশাপাশি তিনি জানান- “নৈহাটি পুরসভা প্রতিদিনই টিকা প্রদান কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছে। এখনও পর্যন্ত আমরা এক দিনে সর্বোচ্চ ৭৫০ জনেরও বেশি মানুষকে টিকা দিয়েছি। তবে অধিকাংশ দিনেওই আমরা ৭০০র বেশি মানুষকে টিকা দিচ্ছি।”

“মোদির কেন ছবি থাকবে?”

“১৮ থেকে ৪৪ বছর বয়সীদের জন্য ভ্যাকসিন আমরা পর্যাপ্ত পরিমানেই পাচ্ছি। এটা আমাদের রাজ্য সরকার দিচ্ছে। তবে ৪৫ বছরের বেশি বয়সের মানুষদের জন্য টিকা আমরা কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেক কম পাচ্ছি। এখানে একটি বিষয় বিশেষ করে উল্লেখ্য – যে ভ্যাকসিন রাজ্য সরকার নিজেরা কিনে দিচ্ছে মানুষের স্বার্থে বাংলার স্বার্থে সেখানে মোদির কেন ছবি থাকবে? সার্টিফিকেটে মোদির ছবি থাকছে। এটা নিয়ে আমাদের আপত্তি ছিল সেই কারণে আমরা বাতিল করে দিয়েছি। আমাদের মুখ্যমন্ত্রী কেন্দ্রের কাছে কোভিড ভ্যাকসিন কেনার ছাড়পত্র চাইছেন যে আমাদের ভ্যাকসিন কেনার অনুমতি দেওয়া হোক।” বলেন নৈহাটির পুরপ্রশাসক অশোক চট্টোপাধ্যায়।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০,১৩৭জন। যা অনেকটাই কম। সেরে উঠেছে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৭,৮৫৬জন। সক্রিয় কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা ৭,৮৫০জন। মৃতের সংখ্যা ১৩১জন। সেরে ওঠার হার ৯২.৫৫শতাংশ।

 Published on: মে ৩১, ২০২১ @ ২৩:০৫


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *