ইতিহাস গড়লেন পিভি সিন্ধু- টোকিওতে ব্রোঞ্জ জিতে প্রথম ভারতীয় মহিলা হিসাবে দু’টি অলিম্পিকে পদক জয়ের নজির

Main খেলা দেশ
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Published on: আগ ১, ২০২১ @ ২০:৪২

এসপিটি নিউজ:    অলিম্পিকে ভারতের হয়ে এক নয়া ইতিহাস গড়লেন ব্যাডমিন্টন তারকা পি ভি সিন্ধু। তিনি হলেন প্রথম ভারতীয় মহিলা এবং সুশীল কুমারের পর দ্বিতীয় ভারতীয় যিনি অলিম্পিকে দু’টি পদক জিতেছেন । আজ টোকিও অলিম্পিকে ব্রোঞ্জ জয়ের ম্যাচে সিন্ধু চীনের হি বিং জিয়াওকে ২১-১৩, ২১-১৫ সেটে পরাজিত করে নিজের লক্ষ্যে পৌঁছে যান। সেই সঙ্গে এবারের অলিম্পিকে ভারতের হয়ে তুলে নেন দ্বিতীয় পদক।

রবিবার জাপানের টোকিওতে মুসাশিনো ফরেস্ট স্পোর্ট প্লাজা কোর্ট-এ এদিন শুরু হয় মহিলাদের ব্যাডমিন্টন সিঙ্গলসের ব্রোঞ্জ জয়ের ম্যাচটি। ভারতের সকলেরই নজর ছিল এই ম্যাচটির দিকে। কারণ, গতকাল বিশ্বের এক নম্বর খেলোয়াড়ের কাছে হেরে ফাইনালে যাওয়ার স্বপ্ন ভঙ্গ হয়ে গেছিল সিন্ধুর। শেষ আশা ছিল আজকের ম্যাচে ব্রোঞ্জ জয়ের। ইতমধ্যেই ভারোত্তোলনে মীরাবাই চানু রূপো জিতেছেন। আরও এক মহিলা বক্সার লভলিনা সেমিফাইনালে পৌঁছে নিজের পদক নিশ্চিত করেছেন। এই পরিস্থিতিতেখেলতে নামেন সিন্ধু। ৫৩ মিনিটেরও বেশি সময় ধরে চলে লড়াই।অবশেষে তিনি তাঁর লক্ষ্যে পৌঁছতে সফল হন। জিতে নেন ব্রোঞ্জ। এর আগে ২০১৬ সালে রিও অলিম্পিকে রূপো জিতেছিলেন।

তাইজু ইং-এর বিপক্ষে সেমিফাইনাল হেরে গেলেও গোটা টুর্নামেন্টে সিন্ধু নিজের দক্ষতা প্রমাণ করে গেছেন। কখনও দুর্বলতা প্রকাশ পায়নি তাঁর মধ্যে। নিজের লক্ষ্যে অবিচল ছিলেন। নিজের ট্রেডমার্ক আগ্রাসনে নমনীয়তা যোগ করেছিলেন।দ্রুত আক্রমণাত্মক অবস্থানে রক্ষণাত্মক অবস্থানকে রূপান্তর করতে সক্ষম হয়েছেন। হি বিং জিয়াও-এর বিরুদ্ধে, উদ্বোধনী সেটে নিজেই ২২টি স্ট্রোক নিয়েছেন  এবং পিভি সিন্ধু এটিকে সুন্দরভাবে ছদ্মবেশী ড্রপ দিয়ে ফোরহ্যান্ড ফোরকোর্টে নিয়ে গেছেন। একই অঞ্চলে দ্রুত ক্রসকোর্ট তাকে ৪-০ হেডস্টার্ট দিয়েছে।

যখন ২৪ বছর বয়সী চীনা তরুণী পিভি সিন্ধুকে প্রায়ই নেটের ব্যাকহ্যান্ডে পিছনে ফেলে দিচ্ছিলেন, সিন্ধু তখন তাঁর প্রতিপক্ষকে ফোরহ্যান্ডের মাধ্যমে একই কাজ করতে বাধ্য করছিলেন।পিভি সিন্ধুর শক্তির ওজন ছিল; দু’বার তিনি বিং জিয়াও-এর বড় স্ম্যাশগুলি পুনরুদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছিলেন, কিন্তু সিন্ধুর কাছে পয়েন্টটি পেরিয়ে যাওয়ার জন্য তৃতীয়টি ছিল। একটি ডাউন-দ্য-লাইন ধাক্কা লেগেছিল যখন ২৬ বছর বয়সী ভারতীয় তরুণী সিন্ধু ১১-৮ এ বিরতিতে এগিয়ে গেছিলেন।

অবশেষে হি বিং জিয়াওকে শেষবারের মতো ধরে রেখে, পিভি সিন্ধু ব্রোঞ্জ পদক নিশ্চিত করেন, সুনিশ্চিতভাবে এগিয়ে গিয়ে শাটলটিকে ফোরহ্যান্ড লাইনের কাছাকাছি পাঠিয়ে দেন.

Published on: আগ ১, ২০২১ @ ২০:৪২


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •