STRANDEDININDIA: ভারতে আটকে পড়া বিদেশি পর্যটকদের জন্য বিদেশ মন্ত্রকের নয়া উদ্যোগ

Main কোভিড-১৯ দেশ বাংলাদেশ বিদেশ
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

  • ভারতে এসে আটকে পড়া বিদেশি পর্যটকদের খোঁজ নিতে এবং তাদের সহায়তা দিতেই বিদেশ মন্ত্রক খুলেছে এই নয়া পোর্টাল।
  • strandedinindia.com   এই লিঙ্ক-এ ক্লিক করলেই জানা যাবে বিস্তারিত সব কিছু।
  • এই মুহূর্তে সারা বিশ্বে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে 8,01,117জন। মৃতের সংখ্যা 38,771জন। সেরে উঠেছেন 1,72,319জন।

Published on: মার্চ ৩১, ২০২০ @ ১৮:০৫

Reporter: Aniruddha Pal

এসপিটি নিউজ, ৩১ মার্চ:   সারা বিশ্ব এখন এক গভীর সংকটের মধ্য দিয়ে চলেছে। ইতিমধ্যে ভারতে এসে আটকে পড়েছেন বহু বিদেশি পর্যটক। দেশে এখন লকডাউন চলছে। তারা আটকে রয়েছে বিভিন্ন জায়গায়। এই পরিস্থিতিতে তাদের সহায়তা দিতে এগিয়ে এসেছে ভারত সরকারের বিদেশ মন্ত্রণালয়। এদের জন্য খোলা হয়েছে এক নয়া পোর্টাল। যার নাম দেওয়া হয়েছে “স্ট্র্যান্ডেডইনইন্ডিয়া”।

আটকে পড়া বিদেশি পর্যটকদের পাশে ভারত সরকার

ঠিক এই মুহূর্তে সারা দেশে ঠিক কতজন বিদেশি পর্যটক কিংবা নাগরিক আমাদের দেশে আটকে রয়েছেন সেই তথ্য আমাদের কাছে নেই। তবে সংখ্যাটা যে খুব কম নয় সেটা কিন্তু এই নয়া পোর্টাল খোলার মধ্যে দিয়েই পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে। সারা ভারতের নানা প্রান্তে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছেন এই সব বিদেশি পর্যটক। সাম্প্রতিক পরিস্থিতিতে তারা দেশে ফিরতে পারছেন না। কবে লকডাউন উঠবে সেটা কেউ জানে না। এই পরিস্থিতিতে কিভাবে তারা রয়েছে কেমন অবস্থায় তারা আছে, কোথায় আছে, তাদের শারীরিক অবস্থা কেমন আছে এসব কিছুই জানা সম্ভব হচ্ছে না। বিশেষ করে তারা যখন আমাদের দেশে আছেন তখন তাদের ভালো-মন্দ সব আমাদের উপরেই পড়ছে। তাই তাদের খোঁজ নিতে এবং তাদের সহায়তা দিতেই বিদেশ মন্ত্রক এমন একটি উদ্যোগ নিয়েছে।

কি আছে এই পোর্টালে

  • “স্ট্র্যাণ্ডেডইনইন্ডিয়া” নামে এই পোর্টালটি আমাদের “ইনক্রেডিবলিন্ডিয়া”র সঙ্গেও যুক্ত করে দেওয়া হয়েছে। বিদেশ মন্ত্রণালয় থেকে আটকে পড়া বিদেশি পর্যটকদের উদ্দেশ্যে বলা হয়েছে- “আপনারা যে যেখানে আছেন সেখানে থেকেই এই পোর্টালের মাধ্যমে সহায়তা পেতে পারেন।” এই পোর্টালটিলে তিনটি ক্যাটাগরি রাখা হয়েছে- ১)মিনিস্ট্রি অফ এক্সটারনাল অ্যাফেয়ার্স, ২) হয়্যার আর ইউ -আপনি কোথায় আছেন?, ৩)সাপোর্ট-সহায়তা।
  • প্রথম ক্যাটাগরিতে বিদেশ মন্ত্রকের হেল্প লাইন নম্বর দিয়েছে। সেখানে কন্ট্রোল রুমের নম্বর দিয়েছে। সেগুলি হল- 1800118797(TOLL FREE), +91 -11-23012113, +91-11-23014103, and +91-11-23017905. দেওয়া হয়েছে ফ্যাক্স ও ইমেল। Fax- +91-11-23018158 and email: covid19@mea.gov.in। এর নীচে দেওয়া হয়েছে কোভিড ১৯ কন্ট্রোল রুম-এর দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসারদের নাম ও তাদের সঙ্গে যোগাযোগের নম্বর। যেখানে ক্লিক করলে পাওয়া যাবে ১৬টি রিজিওন। এগুলিকে ভাগ করা হয়েছে এভাবে- ১) লাতিন আমেরিকা ও ক্যারিবিয়ান, ২)আফ্রিকা, ৩)রাশিয়া ও মধ্য এশিয়া, ৪)গালফ, ৫)চিন, ৬)জাপান/কোরিয়া/মঙ্গোলিয়া, ৭)নেপাল/ভুটান, ৮)দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া ব্যতিক্রম সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া এবং ফিলিপিন্স, ৯)শ্রীলঙ্কা ও মালদ্বীপ, ১০)বাংলাদেশ এবং মায়নামার,১১)সিঙ্গাপুর ও ফিলিপিনস, ১২) ইউরোপ ইতালি ও স্পেন ছাড়া, ১৩) ইরান ও আফগানিস্তান, ১৪)মালয়েশিয়া, ১৫)আমেরিকা/কানাডা, ১৬)ইতালি ও স্পেন।
  • এরপর জানতে চাওয়া হয়েছে আপনি এখন কোথায় আটকে আছেন? নীচে ভারতের রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলির নাম দেওয়া হয়েছে। সেখানে গিয়ে ওই বিদেশি পর্যটক তার অবস্থান জানাতে পারবেন।
  • একেবারে শেষে দেওয়া হয়েছে সহায়তার বিষয়টি। এবার সেই বিদেশি পর্যটকের কাছে জানয়তে চাওয়া হয়েছে – তাঁর নাম, কোথা থেকে তিনি ভারতে এসেছেন, কোথায় আটকে আছেন, তার যোগাযোগের নম্বর, ইমেল এবং সর্বশেষে তাঁর যদি কোনও বার্তা থাকে সেটা তিনি সেখানে দিতে পারবেন। এভাবেই আটকে পড়া বিদেশি পর্যটকদের পাশে থেকে তাদের সহায়তা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত সরকার।

এই মুহূর্তে সারা বিশ্বের ছবি

এই মুহূর্তে সারা বিশ্বে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে 8,01,117জন। মৃতের সংখ্যা 38,771জন। সেরে উঠেছেন 1,72,319জন।সব থেকে বেশি আক্রান্ত হয়েছে আমেরিকায়- 1,64,359. মৃত্যু হয়েছে 3,173 জনের। এরপর আছে ইতালি- সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা 1,01,739 জন। মৃতের সংখ্যা বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে বেশি-11,591 জন। পিছনেই ছুটছে ইউরোপের আরও এক দেশ স্পেন- আক্রান্ত এক লক্ষ ছুঁতে চলেছে-94,417। মৃতের সংখ্যা 8,189 জন। আজ নতুন করে মারা গেছে 473 জন। চিনে আক্রান্ত 81,518 । মারা গেছে 3,305 জন। ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা 1,251 জন। মারা গেছে 32 জন।তুলনামূলকবভাবে এখনও পর্যন্ত মাদের দেশ কোভিড১৯-এর বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। তাই মাদের দেশে আটকে পড়া সমস্ত বিদেশি যাতে সুরক্ষিত ও নিরাপদ থাকে সেদিকে কড়া নজর দিয়েছে ভারত সরকার।

টাফি-র চেয়ারম্যান অনিল পাঞ্জাবি

ট্রাভেল এজেন্টস ফেডারেশন অব ইন্ডিয়া বা টাফি-র চেয়ারম্যান অনিল পাঞ্জাবি ভারত সরকারের বিদেশ মন্ত্রকের এই উদ্যোগের বিষয়ে বলতে গিয়ে জানান- আমাদের দেশ সব সময় বিদেশিদের প্রতি যত্নশীল। এখানে এসে কোনও বিদেশি পর্যটক যাতে কখোনোই অসুবিধায় না পড়েন সেদিকে সর্বদা খেয়াল রাখে ভারত সরকার। বিশেষ করে বর্তমান পরিস্থিতিতে দেশের নানা প্রান্তে বহু বিদেশি আটকে আছে। আমরাও জানি না তাদের অবস্থান এখন কোথায়? তারা কি অবস্থায় আছেন। তাই বিদেশ মন্ত্রক এই “স্ট্র্যান্ডেডইনইন্ডিয়া” নামে যে নয়া পোর্টাল খুলেছে আমি নিশ্চিত যে এতে বিদেশি পর্যটকরা উপকৃত হবেন। তবে এক্ষেত্রে সমস্ত সংবাদ মাধ্যমকেও এগিয়ে আসতে হবে বলে আমি মনে করি।নীচে দেওয়া হল নয়া পোর্টালের লিঙ্ক-

Please visit – strandedinindia.com  or incredibleindia.org

Published on: মার্চ ৩১, ২০২০ @ ১৮:০৫

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *