অবশেষে ‘মানুষ খেকো’ চিতাবাঘকে খাঁচাবন্দি করল বন দফতর

Main বন্যপ্রাণ রাজ্য
শেয়ার করুন

Published on: ডিসে ২, ২০২০ @ ১৮:০২

এসপিটি নিউজ ডেস্ক:  উত্তরখণ্ডের চামোলি জেলায় একটি মানুষখেকো বাঘ গত এক মাস ধরে রীতিমতো আতঙ্ক ছড়িয়েছিল। চিতাবাঘটি শেষ মানুষ মারে গত সোমবার। এর আগে আরও একজনকে হত্যা করে চিতাবাঘটি। এরপরেই নড়েচড়ে বসে বন দফতর। তারা চিতাবাঘটিকে খাঁচাবন্দি করে।

সূত্রের খবর-চামোলী জেলার বিষ্ণুপ্রয়াগ ও বালদোদা গ্রামে গত এক মাস ধরে আতঙ্ক সৃষ্টিকারী মানুষখেকো বাঘটিকে বন দফতর খাঁচাবন্দি করেছে। যার কারণে গ্রামবাসীরা এখন স্বস্তি বোধ করছেন। গত এক মাস ধরে বিষ্ণুপ্রয়াগ এবং বালদোদার আশপাশে বাঘের সন্ত্রাসের ভয়ে গ্রামবাসীরা বেশ আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছিল।

সূত্রের খবর, চামোলি জেলায় সোমবার একটি চিতাবাঘের আক্রমণে একজন 65 বছর বয়সী ব্যক্তি নিহত হন বলে  বন কর্মকর্তারা জানিয়েছিলেন।সোমবার সকালে জেলার জোশীমঠ ব্লকে বাজারে যাওয়ার পথে ওই ব্যক্তিকে চিতাবাঘটি আক্রমণ করে।আক্রমণের পরে, ঘটনাস্থলে উপস্থিত স্থানীয়রা একটি শব্দ করায় চিতাবাঘটি আবার জঙ্গলে চলে যায়। তবে ক্ষুব্ধ বাসিন্দারা সন্ধ্যা অবধি রাস্তায় নিহতের লাশ নিয়ে প্রতিবাদ করে।

উত্তরাখণ্ড বন বিভাগের চিফ বন্যজীবন ওয়ার্ডেন জেএস সুহাগ বলেন, “আমি চিতাটিকে ধরার চেষ্টা করার জন্য ওই অঞ্চলে খাঁচা বসানোর নির্দেশ দিয়েছি। এই অঞ্চল থেকে একটি চিতাবাঘের দ্বারা আক্রমণের এটি দ্বিতীয় ঘটনা। কিছু দিন আগে নেপালি শ্রমিকের উপর চিতাবাঘের আক্রমণ হয়েছিল। ”

এই প্রবীণ বন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, আরও কোনও আক্রমণ চালালে চিতাবাঘকে ‘মানুষখেকো’ হিসাবে ঘোষণা করা হবে।

তবে উত্তরাখণ্ড রাজ্য থেকে এই প্রথম এই ধরনের হামলার খবর পাওয়া যায়নি, যেখানে মানব-চিতা সংঘর্ষ বাড়ছে।

  • নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে চম্পাওয়াত জেলায় চিতাবাঘের আক্রমণে এক 21 বছর বয়সী মহিলা নিহত হন।
  • নৈনিতালের ওখালকান্দা ব্লকে অক্টোবরে এক সপ্তাহে এক কিশোরসহ তিন মহিলা প্রাণ হারান।
  • ২১ শে অক্টোবর, নৈনিতাল জেলায় ঘাস কাটতে বনে যাওয়ার সময় একটি ১৩ বছর বয়সী কিশোরী চিতাবাঘের আক্রমণে মারা গিয়েছিল।
  • ১৫ ই অক্টোবর, ইউএস নগর জেলার জাসপুর এলাকায় একটি ১১ বছর বয়সী কিশোরী তার বাড়ির বাইরে ভাইবোনদের সাথে খেলতে গিয়ে চিতাবাঘের হাতে মারা যায়।

১৪ ই অক্টোবর, পিথোরাগড় জেলায় বনে ঘাস কাটতে গিয়ে ৪০ বছর বয়সী এক মহিলাকে চিতাবাঘের আক্রমণে প্রাণ হারান।

Published on: ডিসে ২, ২০২০ @ ১৮:০২


শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

− 5 = 5