বায়োটেক কিসান হাবের অনবদ্য উদ্যোগ, আগামিকাল হতে চলেছে কৃষক-বিজ্ঞানী সংযোগ সভা

Main দেশ প্রাণী ও মৎস্য বিজ্ঞান রাজ্য শিক্ষা
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Published on: সেপ্টে ৯, ২০২১ @ ২১:৪৫
Reporter: Aniruddha Pal

এসপিটি নিউজ, কলকাতা, ৯ সেপ্টেম্বর:     দেশের কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়েছে দেশেরই বিজ্ঞানীরা। যাতে করে কৃষকরা তাদের মূল্যবান পরামর্শ কাজে লাগিয়ে কৃষি ক্ষেত্রে লাভবান হতে পারে এবং উন্নত ফলন ও খামারের ব্যবস্থা করতে পারে। তাই সরকারি স্তরে এই বিশাল কর্মকান্ডকে এগিয়ে নিয়ে যেতে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বায়োটেক কিসান হাবকে। দেশের বিভিন্ন প্রান্তেই তারা সফলভাবে এই কাজকে ত্বরান্বিত করে চলেছে। আগামিকাল পশ্চিমবঙ্গ প্রাণী ও মৎস্য বিজ্ঞান বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োটেক কিসান হাব বিভাগ এক অনবদ্য উদ্যোগ নিয়েছে। যেখাবে তারা ভার্চুয়ালি কৃষক-বিজ্ঞানী সভার আয়োজন করেছে।

বায়োটেক কিসান হাবের মুখ্য পরিদর্শক ড. কেশব চন্দ্র ধারা যা জানালেন

পশ্চিমবঙ্গ প্রাণী ও মৎস্য বিজ্ঞান বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োটেক কিসান হাবের মুখ্য পরিদর্শক ড. কেশব চন্দ্র ধারা জানিয়েছেন- “আগামিকাল ১০ সেপ্টেম্বর ২০২১ তারিখে দুপুর আড়াইটে থেকে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত এক তাৎপর্যপূর্ণ আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে। ভার্চুয়ালি এই সভা অনুষ্ঠিত হবে। পশ্চিমবঙ্গের সাড়ে তিন হাজার কৃষকদের বিশেষ করে উচ্চাভিলাষী জেলাগুলিকে সংযুক্ত করতে এই কৃষক-বিজ্ঞানী সংযোগ সভার আয়োজন করা হয়েছে। এখানে নদিয়া, মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, মালদহ এবং দক্ষিণ দিনাজপুরের কৃষকরা অংশ নেবেন। কৃষি সম্প্রদায়ের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য থাকবেন ১০০জন বিজ্ঞানী, যারা তাদের মূল্যবান পরামর্শ দেবেন কৃষিবন্ধুদের।

কিভাবে যোগ দেবেন এই কর্সূচিতে

এই কর্মসূচির উদ্বোধন করবেন ড. রেণু স্বরূপ, মাননীয় সচিব, বায়োটেকনোলজি বিভাগ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়,  ভারত সরকার।এই কর্মসূচিতে আমি আপনাকে অনুরোধ করছি যে আপনি উপস্থিত থাকুন এবং কৃষকদের সাথে আপনার মূল্যবান চিন্তাগুলি পৌঁছে দিন। গুগল মিট অ্যাপে মিটিং লিঙ্ক হল meet.google.com/xvy-adcv-jdk অথবা গুগল মিট খুলুন এবং এই কোডটি প্রবেশ করান: xvy-adcv-jdk যোগ দিন।

বায়োটেক কিসান হাব কি

বায়োটেক কিসান হাবের পুরো কথা হল- বায়োটেক-কৃষি ইনোভেশন সায়েন্স অ্যাপ্লিকেশন নেটওয়ার্ক।  এটি হল ভারত সরকারের কর্মসূচি, যা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রকের অধীনে থাকা  উন্নত প্রযুক্তির সহায়তায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের ক্ষমতায়নের জন্য বায়োটেকনোলজি বিভাগ । এর লক্ষ্য হল- উৎপাদনশীলতার কারণসমূহের ক্ষেত্রে কৃষকদের সীমাবদ্ধতাগুলি খুঁজে বের করা, যেমন জল, মাটি, বীজ ও বাজার এবং বৈশ্বিক দৃষ্টিভঙ্গির সাথে স্থানীয়ভাবে এই সমস্যাগুলির সমাধান করা।

কৃষক-বিজ্ঞানী সংযোগ

এই প্রোগ্রামটি ধরে নেয় যে বিজ্ঞান গবেষণাগার এবং খামারগুলির মধ্যে সরাসরি সংযোগের প্রয়োজন রয়েছে; এটা এখন অপরিহার্য যে ভারতীয় বিজ্ঞানী স্থানীয় কৃষকের সমস্যাগুলি বোঝেন এবং সেই সমস্যার সমাধান প্রদান করেন। একইভাবে, কৃষকদের বৈজ্ঞানিক পরিবেশে/পরীক্ষাগারে এনে বৈজ্ঞানিক সমাধানের জন্য উন্মুক্ত করা প্রয়োজন। এই ঘনিষ্ঠ মিথস্ক্রিয়া এবং প্রয়োজন ভিত্তিক গবেষণার মাধ্যমে উদ্ভাবনী সমাধান এবং প্রযুক্তিগুলি খামার পর্যায়ে বিকশিত এবং প্রয়োগ করা যাবে বলে মনে করা হচ্ছে। ছবিঃ ফাইল ফটো

Published on: সেপ্টে ৯, ২০২১ @ ২১:৪৫


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •