বাড়ি ভাঙতেই মাটির তলা থেকে বেরোতে শুরু করল সোনা-রূপোর কয়েন

Main রাজ্য
শেয়ার করুন

সংবাদদাতা-বাপ্পা মন্ডল                                     ছবি-বাপন ঘোষ

Published on: জানু ২৭, ২০১৯ @ ২১:৪৩

এসপিটি নিউজ, গোয়ালতোড়, ২৭ জানুয়ারিঃ এর আগেও মাটির বাড়ি ভাঙা হয়েছে। কিন্তু সেখানে এমনটা দেখা যায়নি। কিন্তু এদিন যা হল তা দেখে তাজ্জব বনে গেছে গোটা গ্রামের মানুষ। একটা-দুটো নয় অসংখ্য সোনা-রূপোর কয়েন বেরিয়ে আসছে মাটির তলা থেকে। মাটির বাড়ি ভেঙে ফেলতেই এমন কাণ্ড ঘটল পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার গোয়ালতোড়ের হাঁড়িমারা গ্রামে তিমির সিংহমহাপাত্রের বাড়িতে।

জানা গেছে, শনিবার সাতসকালে তিমিরবাবুর প্রনো মাটির বাড়ি ভেঙে ফেলার কাজ শুরু হয়। নতুন পাকা বাড়ি গড়বেন বলে শুরু হয় ভাঙার কাজ। কিন্তু কি কান্ড! শ্রমিকরা ভাঙাভাঙি শুরু করতেই তাদের চোখ কপালে ওঠে। তারা দেখেন মাটির তলা থেকে চকচকে একাধিক কয়েন বেরিয়ে আসছে। হাতে তুলতেই তাদের আর বিস্ময়ের শেষ থাকে না। বুঝতে পারেন- এগুলো সবই সোনা আর রূপোর কয়েন।

তিমির বাবু জানিয়েছেন, “তাদের পুরানো বাড়ি। তাদের পুর্বপুরুষ দের কেউ এই কয়েন মাটির নীচে চাপা দিয়ে রাখতে পারে যা আমাদের অজানা ছিল। পুরনো বাড়ি ভেঙে মাটি ফেলতে গিয়েই এই কয়েন গুলি নজরে পড়ে। তবে সোনার চেয়ে রুপার কয়েন বেশি আছে।”  তিনি জানান- এই কয়েনগুলির বর্তমান বাজার মুল্য প্রায় তিনলক্ষাধিক টাকা।

মুহূর্তের এই খবর চাউর হয়ে যায় গোটা গ্রামে। আশপাশ থেকে লোকজন এসে দু-একটা কয়েন তুলে নিলেও বাড়ির মালিক তিমিরবাবুর হুঁশিয়ারিতে সকলে পিছু হঠতে বাধ্য হয়। উদ্ধার হওয়া কয়েনগুলি ১৯৪০, ১৯৪৪ সালের।কিন্তু ক্রমেই লোকজন বাড়তে থাকায় তিমিরবাবু পুলিশে খবর দেন। পুলিশ এসে ঘটনাস্থলে পরিস্থিতি সামাল দেয়।

Published on: জানু ২৭, ২০১৯ @ ২১:৪৩

 

 


শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

9 + = 14