ফার্মাকন ভেট প্রাইভেট লিমিটেডে ২৮ বছরে পড়ল বিশ্বকর্মা পুজো

Main ধর্ম রাজ্য
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Published on: সেপ্টে ১৭, ২০২১ @ ২১:১৮

এসপিটি নিউজ, কলকাতা, ১৭ সেপ্টেম্বর:   কোভিড-১৯ মহামারীর পর এ বছর মহামসমারোহে সারা দেশজুড়ে আজ শুক্রবার বিশ্বকর্মা পুজো পালিত হচ্ছে। পশ্চিমবঙ্গে সব চেয়ে বেশি জাঁকজমক আকারে এই উৎসব পালিত হয় পশ্চিম মেদিনীপুরের খড়গপুরে। কলকাতায় একাধিক প্রতিষ্ঠানে এই পুজো হচ্ছে। বেহালায় ফার্মাকন প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানিতে এই বছর পুজো ২৮ বছরে পড়ল।

ফার্মাকনের পুজো

ফার্মাকন ভেট প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানির কর্ণধার সঞ্জয় রায় জানালেন- “তাদের কোম্পানিতে বিশ্বকর্মা পুজো ২৮ বছর ধরে হয়ে আসছে। কোম্পানি প্রতিষ্ঠার পর থেকে এই পুজো করে আসছেন তারা। পুজোর দিনে কর্মচারীদের খাওয়া-দাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়।”

ফার্মাকন ভেট প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি মূলত প্রাণীদের ওষুধ প্রস্তুতকারক কোম্পানি। সারা পশ্চিমবঙ্গের মধ্যে বিগত বছরগুলি ধরে তারা সুনামের সঙ্গে তাদের ওষুধ প্রস্তুত করে আসছে। তবে এই কোম্পানি ওষুধ প্রস্তুত করারা পাশাপাশি তারা সমাজসেবামূলক কাজেও যুক্ত থাকে সারা বছর। জানালেন কোম্পানির কর্ণধার সঞ্জয়বাবু।

জানুন, বিশ্বকর্মা পুজো সম্পর্কে

বিশ্বকর্মা পুজো,  যা বিশ্বকর্মা জয়ন্তী নামেও পরিচিত, আজ, ১৭ সেপ্টেম্বর সারা দেশে এই পুজো উদযাপিত হচ্ছে। বিশেষ উপলক্ষ ভাদ্রের শেষ দিনে পড়ে, যাকে ভাদ্র সংক্রান্তি বা কন্যা সংক্রান্তিও বলা হয়। এই দিনে, ভক্তরা ভগবান বিশ্বকর্মার পুজো করেন, যাকে বলা হয় পৃথিবীর সৃষ্টিকর্তা। এছাড়াও, তিনি যান্ত্রিক এবং স্থাপত্য বিজ্ঞানের কৃতিত্বের অধিকারী।

বিশ্বকর্মা পুজো উপলক্ষে কারখানা ও শিল্পাঞ্চলের শ্রমিকরা তাদের সরঞ্জাম পুজো করে। তারা ভগবান বিশ্বকর্মার কাছে তাদের মেশিনের সুষ্ঠু কাজ এবং নিরাপদ জীবিকার জন্য প্রার্থনা করে। এই দিনে, তারা তাদের সরঞ্জাম ব্যবহার করে না।

উৎসবটি মূলত বিহার, আসাম, পশ্চিমবঙ্গ, ঝাড়খণ্ড এবং ওড়িশার মতো পূর্ব রাজ্যে চিহ্নিত করা হয়। নেপালেও বিশ্বকর্মা পুজো পালিত হয়। তবে, চলমান কোভিড -১৯ সংকটের মধ্যে, এই বছর সেখানে কোনও কিছু উদযাপন হচ্ছে না।

Published on: সেপ্টে ১৭, ২০২১ @ ২১:১৮


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •