বদ্রীনাথ, গঙ্গোত্রী, যমুনোত্রীর তীর্থ পুরোহিতরা হাতে কালো কাপড় বেঁধে পুজো করলেন-কেন জানেন

Main দেশ ধর্ম ভ্রমণ
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Published on: জুন ১২, ২০২১ @ ১৭:৫০

এসপিটি নিউজ ব্যুরোঃ  উত্তরাখণ্ড চার ধাম দেবস্থানম ম্যানেজমেন্ট বোর্ডকে ভেঙে দেওয়ার দাবিতে তীর্থ পুরোহিতরা আন্দোলন শুরু করেছেন। বদ্রীনাথ, গঙ্গোত্রী ও যমুনোত্রী ধামে তীর্থ পুরোহিতরা হাতে কালো কাপড় বেঁধে আজ পুজো করেন। একই সময়ে কেদারনাথের তীর্থ পুরোহিতরা গুপ্তকাশিতে এই প্রতিবাদে শামিল হন। তাদের হুঁশিয়ারি, অবিল্মবে এই বৈর্ড না ভাঙা হলে তাদের আন্দোলন আরও তীব্র হবে। এমনকী, ২১ জুন থেকে তারা অনশন শুরু করারও হুমকি দিয়েছেন। এদিন উত্তরাখণ্ড সরকারের কুশপুতুলও পোড়ানো হয়েছে। সর্বভারতীয় স্তরের হিন্দি সংবাদ মাধ্যম জাগরন ডট কম আজ এমনই একটি খবর প্রকাশ করেছে।

সংবাদ মাধ্যমটি লিখেছে যে চার ধামে তীর্থ পুরোহিতরা দেবস্থানম বোর্ড গঠনের বিরোধিতা করছেন। শুক্রবার ব্রহ্মকাপাল তীর্থ পুরোহিত পঞ্চায়েত সমিতির নেতৃত্বে তীর্থপুরোহিতরা বদ্রীনাথ ও জোশীমঠে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন।তাদের অভিযোগ, সরকার ঐতিহ্য-পরম্পরা লঙ্ঘন করছে। বদ্রীনাথ তীর্থ পুরোহিত সংঘের সভাপতি উমেশ সতী সংবাদ মাধ্যমটিকে বলেন যে একদিকে মুখ্যমন্ত্রী দেবস্থানম বোর্ডের পুনর্বিবেচনা করার কথা বলছেন, অন্যদিকে পর্যটনমন্ত্রী সাতপাল মহারাজ জানিয়েছেন যে বোর্ডটিকে ভেঙে দেওয়া হবে না।

গঙ্গোত্রী মন্দির কমিটির সেক্রেটারি দীপক সেমওয়াল এবং সহ-সম্পাদক রাজেশ সেমওয়াল বলেছেন যে রাজ্য সরকার তীর্থ পুরোহিতদের বিভ্রান্ত করছে। তিনি বলেন যে ১৫ জুন গঙ্গোত্রী মন্দির কমপ্লেক্স ও শীতকালীন উপাসনা স্থান মুখোয়াতে প্রতীকী অনশন পালিত হবে। এ ছাড়া 20 জুন রাজ্য সরকারের বুদ্ধি পরিশুদ্ধির জন্য একটি হাওয়ানের আয়োজন করা হয়েছে।

অন্যদিকে, কেদারনাথের তীর্থ পুরোহিতরা রুদ্রপ্রয়াগ জেলার গুপ্তকশীতে সরকারের কুশপুতুল পুড়িয়েছেন। কেদারসভার সভাপতি বিনোদ শুক্লা ও প্রাক্তন সভাপতি কিশান বাগওয়াদি বলেন যে বোর্ডটি ভেঙে দেওয়ার পরিবর্তে এটি সম্প্রসারণ করা হচ্ছে। তীর্থপুরোহিত অমিত শুক্লা অভিযোগ করেছেন যে ডানপন্থীদের আস্থা নেওয়ার জন্য একটি বোর্ড গঠন করা হয়েছিল।

Published on: জুন ১২, ২০২১ @ ১৭:৫০


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •