“আনন্দ করো”- গুরুপূর্ণিমায় শিল্পী ইমন দাসের স্লোগান, সংবাদ প্রভাকর টাইমসকে জানালেন কারণ

Main এসপিটি এক্সক্লুসিভ দেশ বিনোদন রাজ্য
শেয়ার করুন

শিল্পী ইমন দাস তৈরি করেছেন এক অনবদ্য মিউজিক ভিডিও- যার নাম দিয়েছে ‘আনন্দ করো’।
মিউজিক ভিডিওটিতে পারফর্ম করেছেন বিভিন্ন ক্ষেত্রের মোট 9 জন প্রথিতযশা গুণীজন।

Published on: জুলা ৬, ২০২০ @ ১২:২০

Reporter: Jayanta Bandopadhyay

এসপিটি নিউজ, কলকাতা, 6 জুলাই:   ‘গু’ অর্থাৎ অন্ধকার আর ‘রু’ অর্থাৎ নিবারণ। অন্ধকারকে নিবারণ করেন যিনি তিনি হলেন গুরু। আজ গুরুপূর্ণিমার পবিত্র দিনে সেই গুরুর প্রতি শ্রদ্ধা ও সম্মান জানিয়েই শিল্পী ইমন দাস নিয়েছেন এমনই এক অভিনব প্রয়াস। ইতিপূর্বে ওস্তাদ রশিদ খান থেকে শুরু করে পন্ডিত অজয় চক্রবর্তী দেশের এই সংকটের সময় দুঃস্থ শিল্পী থকে শুরু করে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর শপথ নিয়েছেন। করছেন সাহায্য। তাদের দেখানো পথ ধরেই নিজের মতো করে শিল্পী ইমন দাস এগিয়ে এসেছেন। স্লোগান তুলেছেন “আনন্দ করো”। কোভিড-19 মহামারী নিয়ে সবাই যখন আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে তখন শিল্পী এমন একটা স্লোগান কেন তুললেন। কারণ জানালেন সংবাদ প্রভাকর টাইমসকে। শোনা যাক তাঁর মুখেই।

আনন্দ করো-

১) কারণ, অসহায় ছেলে-মেয়েদের পড়াশোনা যাতে বন্ধ না হয়

ইমন দাস- “আমরা এক বড় সংকটের মধ্যে দিয়ে চলেছি। এই দুঃসময়ে বহু শিশু খুবই কষ্টে আছে। এমন অনেক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আছে যাদের তিনি চেনেন যারা এইসমস্ত অবহেলিত শিশুদের নিয়ে কাজ করছে। সেইসমস্ত শিশুদের শিক্ষার অগ্রগতিতে একটা তহবিল গঠন করার জন্য একটি অনুষ্ঠান আয়োজনের কথা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলির তরফে তার কাছে অনুরোধ রাখা হয়েছিল। অনেক মেধাবী ছাত্রছাত্রীরা পয়সার অভাবে অনলাইন ক্লাস করতে পারছে না। তারা মোবাইল কিনতে পারছে না। একথা শোনার পরই আমার মনে হয়েছে যে আমরা তো একটু চেষ্টা করে দেখতে পারি। সবাইকে আমরা সাহায্য করতে পারব কিনা জানি না।কিন্তু কিছু শিশুকে তো  করতে পারি। তাদের যদি আমরা সাহায্য করতে পারি তাহলে হয়তো ওই শিশুগুলির পড়াশোনা বন্ধ হবে না। তাদের মুখে হাসি ফুটবে। তাই আমরা বলছি আনন্দ করো।”

আনন্দ করো-

২) কারণ, হতাশাগ্রস্তদের মুখে হাসি ফোটানোই আমাদের লক্ষ্য

ইমন দাস- “সারা বিশ্বব্যাপী কোভিড-19 মহামারী নিয়ে মানুষ আজ আতঙ্কিত। বহু মানুষ কাজ হারিয়ে স্বজন হারিয়ে হতাশাগ্রস্ত। এমনকী, গান-বাজনাতেও চলে আসছে হতাশা। আমি মনে করি হতাশাকে যত বেশি মনের ভিতর জায়গা দেওয়া যাবে তত বেশি আমরা ভেঙে পড়ব।এর থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতেই হবে। তাই আমি গান-বাজনার পথ ধরে সেইসমস্ত হতাশগ্রস্তদের মুখে হাসি ফোটাতে চেয়েছি।তাই আমি বলেছি আনন্দ করো।”

আনন্দ করো-

৩) কারণ,  অনেকেই এগিয়ে এসেছেন সাহায্যের জন্য

ইমন দাস- “এমন এক দুঃসময়ে বেশ কিছু মানুষ সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। আমি চিনি বা জানি এমন অনেকেই আছেন তার মধ্যে।পন্ডিত সমর সাহা আমি তাকে কাকু বলে ডাকি। তিনি নিজের মতো করে এই সব মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছেন।পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তী এগিয়ে এসেছেন এবং তিনি এই উদ্দেশ্যেই একটি অনুষ্ঠান করছেন। ওস্তাদ রশিদ খান তাঁর জন্মদিনে নিজের চতর্মুখী লক্ষ্যের কথা জানিয়েছেন। তারই একটি একটি বড় পদক্ষেপ, সংগীত জগতের দুঃস্থ শিক্ষকদের সাহায্য করা এবং তাঁদের জন্য খাদ্য ও স্বাস্থ্য বীমা কিছু করা যায় কিনা তার ব্যবস্থা করা।সত্যিই এ এক খুবই ভালো প্রয়াস।তাই আমি বলেছি আনন্দ করো।”

অনবদ্য মিউজিক ভিডিও-আনন্দ করো

এইসমস্ত বিষয়কে মাথায় রেখেই শিল্পী ইমন দাস তৈরি করেছেন এক অনবদ্য মিউজিক ভিডিও- যার নাম দিয়েছে ‘আনন্দ করো’।শিল্পী জানালেন এই মিউজিক ভিডিঅটিতে যারা পারফর্ম করেছেন বা অংশ নিয়েছেন তারা সকলেই এক মহৎ উদ্দেশ্যে বিনা পারিশ্রমিকেই কাজ করেছেন। এই মিউজিক ভিডিও নিয়ে তিনি সংবাদ প্রভাকর টাইমসকে জানালেন কিছু গুরুত্বপূর্ণ কথা।

ইমন দাস জানালেন

  • আনন্দ করো” আমার উদ্যোগ,  রচনা এবং সুর ও সংগীত পরিচালনা আমার করা।
  • বিগত সাড়ে তিন মাস ধরে এই প্রজেক্ট-এর প্রস্তুতি চলছে।
  • ভারতের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে সংগীতের বিভিন্ন ক্ষেত্রের ৯ শীর্ষ তরুণ সুপারস্টারকে বেছে নিয়েছি।
  • গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ড প্রাপ্ত করেছেন এমন একজন পর্বতারোহীকে সঙ্গে নিয়েছি।
  • তাঁর সঙ্গে একটি অনন্য সংগীতের ভিডিও তৈরি করা হয়েছে- “ইয়ং ইন্ডিয়া, ফ্রি ইন্ডিয়া,  নিউ ইন্ডিয়া”।

অংশগ্রহণকারীরা হলেন-

১.দেব নেগি (বলিউডের প্লেব্যাক গায়ক, কেদারনাথ, বদ্রীনাথ কী দুলহানিয়া, জব হ্যারি সেজালের সাথে দেখা ইত্যাদির জন্য বিখ্যাত)

২.অদিতি পাল (বলিউডের প্লেব্যাক গায়ক, বাহুবলী, রামলীলা, ভিকি ডোনারের জন্য বিখ্যাত)

৩.এম.ডি.পল্লবী (কন্নাড় প্লেব্যাক গায়ক ও অভিনেত্রী)

৪.মৃদুলা ভারিয়ার (মালায়ালাম প্লেব্যাক গায়ক)

৫.চন্দনা বালকল্যাণ (কার্ন্যাটিক ফিউশন)

৬.ইমন চক্রবর্তী (জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত টলিউড প্লেব্যাক গায়ক)

৭.রিম্পা শিভ (মহিলা তবলা বাদক)

৮.বিশাল কৃষ্ণা ( নৃত্যশিল্পী)

৯.সত্যরূপ সিদ্ধান্ত (পর্বতারোহণে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ড)

Published on: জুলা ৬, ২০২০ @ ১২:২০


শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

+ 86 = 88